close(x)
 

বাংলাদেশে সহিংসতা মুক্ত নির্বাচন দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলাদেশে সহিংসতা মুক্ত নির্বাচন দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র ভায়োলেন্স ফ্রি-পিসফুল-ফেয়ার ইলেকশন চায়, এর বাইরে কিছুই চায় না। আমরা বলেছি সংবিধান অনুসারে নির্বাচন কমিশনের তত্ত্বাবধানে ভোটগ্রহণ হবে। আমাদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নির্বাচন কমিশনের অধীনেই থাকবে। নির্বাচন কমিশন যেভাবে নির্দেশনা দেবে তারা সেভাবেই কাজ করবে।’

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে যুক্তরাষ্ট্রের গণতন্ত্র, ‘মানবাধিকার ও বেসামরিক জনগণের নিরাপত্তাবিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি উজরা জেয়ারের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে তিনি এ কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, মার্কিন প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আমাদের খোলামেলা আলোচনা হয়েছে। দেশের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে তারা সন্তুষ্ট। গতকাল দুই দলের যে বড় একটি শান্তিপূর্ণ সহবস্থান ছিল সেটা নিয়েও তারা প্রশংসা করেছেন।’

তিনি বলেন, আমাদের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী প্রস্তুত আছে এবং তারা যে আমাদের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী কিছু বিশেষায়িত বাহিনীকে প্রশিক্ষণ ও অস্ত্র দিয়েছে সেটাও আমি তাদের মনে করিয়ে দিয়েছি। আমরা বলেছি, আমাদের সিকিউরিটি ফোর্স, আমাদের ল’ এনফোর্সমেন্ট ফোর্স সব সময় তৈরি আছে। তারা ওয়েল ট্রেইন্ড, সেই ট্রেইনিংয়ে তারা উজ্জীবিত আছে। ইতোমধ্যে অনেকগুলো ইলেকশন হয়ে গেছে, যেগুলো অত্যন্ত পিসফুল হয়েছে। সে রকম ন্যাশনাল ইলেকশনটাও পিসফুল হবে। আমরা সেটাই আশা করছি।

তাদের নাগরিকদের চলাফেরায় সতর্ক করার বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে আসাদুজ্জামান খান বলেন, ‘আমাদের সঙ্গে এ রকম কথা বলেনি। এখানে যে কথা হয়েছে, সেখানে এ রকম কথা হয়নি।’ ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে আইনমন্ত্রীর সঙ্গে কথা হয়েছে। আইনমন্ত্রী ইতোমধ্যে বলে দিয়েছেন যে, আমাদের কিছু আইন যুগোপযোগী করার জন্য; বিদেশে যেভাবে আছে সেগুলোর সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে আমাদের আইন আরেকটু সংশোধিত হবে। আজকে তারা (প্রসঙ্গ) তোলার পরে আমিও একই কথাই বলেছি,’ বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *