close(x)
 

শিক্ষার্থীকে চাপা দিয়ে পালানোর সময় শিশুর প্রাণ কাড়লো ‘ভিক্টর’

ভিক্টর ক্ল্যাসিক

রাজধানীর রামপুরা ব্রিজ এলাকায় চীনে অধ্যয়নরত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী জাহিদ হাসানকে (২৪) চাপা দেয় ভিক্টর ক্ল্যাসিক পরিবহনের একটি বাস। দ্রুত তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে, শিক্ষার্থীকে চাপা দেওয়ার পর দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে পালানোর চেষ্টা করে বাসটি। তড়িঘড়ি বাস নিয়ে হাতিরঝিল সড়কে ঢুকে পড়েন চালক। পালানোর সময় পথে মেহেদী হাসান পারভেজ (৭) নামে এক শিশুকে চাপা দেয় বাসটি। এতে ঘটনাস্থলেই ওই শিশুর মৃত্যু হয়।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে পৌনে ৫টার মধ্যে এ দুটি দুর্ঘটনা ঘটে। দ্বিতীয় দুর্ঘটনার পর বাস ও বাসচালককে আটক করেছে হাতিরঝিল থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুলাই) হাতিরঝিল থানার পরিদর্শক (অপারেশনস) আব্দুস কুদ্দুস জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ভিক্টর ক্ল্যাসিক বাসের ধাক্কায় ৭ বছর বয়সী এক শিশু নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় বাসটি জব্দ করা হয়েছে। বাসচালক আরিফকে আটক করা হয়েছে।

অন্যদিকে জাহিদকে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে আসা তার ভাই মো. ইমরান হোসেন বলেন, জাহিদ চীনের নর্থ ইলেকট্রিক পাওয়ার ইউনিভার্সিটিতে পড়াশোনা করতো। ছুটিতে বাংলাদেশে এসেছে। রামপুরা এলাকায় একটা কাজে এসেছিলাম। কাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে রামপুরা ব্রিজ এলাকায় রাস্তা পারাপারের সময় যাত্রীবাহী বাস জাহিদকে সজোরে ধাক্কা দেয়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত জাহিদ হাসান মুন্সিগঞ্জের মো. মোদাচ্ছের আলীর ছেলে। বর্তমানে তারা সপরিবারে ডেমরা স্টাফ কোয়ার্টার এলাকায় থাকেন। তারা তিন ভাই ও এক বোন।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে জানানো হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *