close(x)
 

বাড়ির পাশেই পুঁতে রাখা হয় নিখোঁজ গৃহবধূর লাশ

প্রতীকী ছবি

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে পারিবারিক কলহের জেরে গৃহবধূকে হত্যার পর বাড়ির পাশে পুঁতে রাখার অভিযোগ উঠেছে স্বামী ও শাশুড়ির বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার (১৮ জুলাই) পচা গন্ধ পেয়ে স্থানীয় লোকজন পুলিশকে খবর দিলে উপজেলার বিশনন্দী ইউনিয়নের গাজীপুরা গ্রাম থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত মানসুরা (২৮) উপজেলার গোপালদী পৌরসভার রামচন্দ্রদী গ্রামের আবুল হোসেনের মেয়ে। অভিযুক্ত স্বামী আশরাফ (৩৫) উপজেলার বিশনন্দী ইউনিয়নের গাজীপুরা গ্রামের জুলহাসের ছেলে।

এ ঘটনায় নিহতের স্বামী ও শাশুড়ি সেলিনাকে আটক করেছে পুলিশ।
স্বজন ও প্রতিবেশীরা জানায়, মানসুরা ছয়-সাত দিন ধরে স্বামীর বাড়ি থেকে নিখোঁজ ছিলেন। লাশের পচন দেখে পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে তাঁকে ওই সময়েই হত্যা করা হয়েছে।

জানা যায়, তিন বছর আগে মানসুরার সঙ্গে আশরাফের বিয়ে হয়।

দুজনেরই এটি দ্বিতীয় বিয়ে। পারিবারিক কলহের কারণে তাঁদের মধ্যে ঝগড়া লেগেই থাকত।
আড়াইহাজার থানার ওসি এমদাদুল ইসলাম তৈয়ব জানান, এ ঘটনায় আশরাফ ও তাঁর মা সেলিনাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ সদর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

হত্যাকাণ্ডটি ছয়-সাত দিন আগে হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *