close(x)
 

যুবলীগ নেতার কবজি কাটার মামলায় আসামি আওয়ামী লীগ সম্পাদক

নাটোরে যুবলীগ নেতা মিঠুন আলীকে কুপিয়ে হাতের কবজি কেটে নেওয়ার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় প্রধান আসামি করা হয়েছে নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রমজানকে।

নাটোর পৌর যুবলীগের তিন নম্বর ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক আহত মিঠুন আলীর ছোট ভাই স্বপ্ন বাদশা বাদী হয়ে সোমবার রাত ১২টার পর এই মামলা দায়ের করেন। মামলায় ৩০ জনের নাম উল্লেখ ছাড়া আরো ৮-১০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নাটোর থানার উপ-পরিদর্শক সাজ্জাদ হোসেন মামলার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

সোমবার মধ্যরাতে নাটোর থানায় দায়ের করা মামলায়, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোর্তজা আলী বাবলু, তার ছোট ভাই নাটোর পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোস্তাক আলী মুকুল এবং জেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক ও নাটোর পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত নান্নু শেখকেও অভিযুক্ত করা হয়েছে।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রমজান বলেন, এটি একটি পরিকল্পিত মিথ্যা মামলা। বর্তমান এমপি শফিকুল ইসলাম শিমুলের মদদ পুষ্ট হয়ে নাটোরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিকে দুর্বল ও তার অবস্থান সুসংসহত করার লক্ষ্যে জেলা আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। আমি এ ঘটনা সম্পর্কে কিছুই জানতাম না।

নাটোর থানার ওসি নাছিম আহমেদ বলেছেন, এ বিষয়ে মামলা দায়ের হয়েছে। উপ-পরিদর্শক সাজ্জাদ হোসেনকে মামলার তদন্তভার দেয়া হয়েছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *