রাত ২টায় মাতাল হয়ে অফিসের বসকে মেসেজ, ভাইরাল পোস্ট

প্রেমের সম্পর্ক ভেঙে গেছে। একা বেঁচে থাকতে তেমন সমস্যা না হলেও মাঝে মধ্যেই মনে পড়ে সাবেকের কথা। কিন্তু এক-দুই ঢোক অ্যালকোহল পেটে পড়লেই হলো! মনের গভীরে চেপে রাখা সব আবেগ-অনুভূতি যেন সোডার বোতলের ছিপি খোলার মতো ভুসভুসিয়ে ওঠে। তারপর কোনো এক দুর্বল মুহূর্তে হাতে মোবাইল তুলে সাবেককে মেসেজ করে ফেলা- এসব মোটেও নতুন নয়।

এ ধরনের ‘ড্রাংক টেক্সট’ ব্যাপারটার সঙ্গে কমবেশি সবাই পরিচিত। তবে মদ্যপান করে সাবেক প্রেমিক/প্রেমিকার পরিবর্তে অফিসের বসকে মেসেজ পাঠানোর ঘটনা খুব একটা শোনা যায় না। কিন্তু তেমনটাই করেছেন ভারতের এক কর্মী। মধ্যরাতে মদ্যপান করে বসকে মেসেজে তিনি যা বলেছিলেন, তা এরই মধ্যে ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

এমনিতে চাকরি যত মোটা বেতনেরই হোক না কেন, কর্মসংস্কৃতি নিয়ে সবারই কিছু না কিছু অভিযোগ থাকে। বিশেষ করে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের আচরণ নিয়ে কর্মীদের অসন্তোষের শেষ থাকে না। কিন্তু অফিসের বস হিসেবে সিদ্ধান্ত যেন একেবারেই আলাদা। রাত ২টার সময় নেশার ঘোরে মেসেজ পাঠিয়ে অধঃস্তন কর্মীই তা প্রমাণ করে দিয়েছেন।

সেই কর্মীর সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপে কথোপকথনের একটি স্ক্রিনশট টুইটারে শেয়ার করেছেন সিদ্ধান্ত নিজেই। তাতে দেখা যায়, রাত ২টা ১৬ মিনিটে সংস্থার এক কর্মী তাকে লিখেছেন, বস, আমি মাতাল হয়ে রয়েছি। কিন্তু আমার এটা আপনাকে বলতেই হবে। আমার ওপর ভরসা রাখার জন্য ধন্যবাদ। ভালো সংস্থায় চাকরি পাওয়ার চেয়ে একজন ভালো ম্যানেজার পাওয়া আরও কঠিন। এ ব্যাপারে আমি অত্যন্ত সৌভাগ্যবান। তাই নিজেকে মূল্য দেন।

সিদ্ধান্ত ছবিটি শেয়ার করে ক্যাপশনে লিখেছেন, মদ্যপান করে সাবেক (প্রেমিক/প্রেমিকা) মেসেজ করলে ঠিক আছে, কিন্তু এ ধরনের ড্রাংক টেক্সট কি কখনো পেয়েছেন?’ যদিও ওই কর্মীর নাম প্রকাশ করেননি তিনি।

সিদ্ধান্তের সেই পোস্ট দেখে আবেগে আপ্লুত নেটিজেনরা। অনেকেই লিখেছেন, বস যে সত্যিই এতটা ভালো হতে পারেন, তা জানা ছিল না। ‘স্বপ্নের মতো মেসেজ!’ লিখেছেন একজন।

আরেক ব্যক্তি লিখেছেন, ভালো বস হওয়ার জন্য আপনাকে অভিবাদন জানাই। ওই কর্মীর আনন্দ আমি নিজেও উপভোগ করতে পারছি।

‘আমি ভাবছি, আপনার অধীনে যারা কাজ করে তারা কতটা সৌভাগ্যবান। যদি আপনি আমার বস হতেন!’ আক্ষেপ তৃতীয় একজনের।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *